বিএনপি অষ্টেলিয়ার ঐতিহাসিক ‘বিজয় দিবস ২০১৭’ পালন

bnp bijoy 1

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি অষ্টেলিয়ার উদ্যোগে জাতীয় ‘ মহান বিজয় দিবস ২০১৭‘ উপলক্ষে এক আলোচনা সভা, সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা আর নৈশভোজের আয়োজন করা হয় গতকাল রবিবার সন্ধা ৭ঃ৩০ সিডনীর রকডেলের বনলতা রেষ্টুরেন্টের ফাংশন সেন্টারএ। অনুষ্ঠানের মঞ্চে উপস্হিত ছিলেন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি অস্টেলিয়া শাখার প্রধান উপদেষ্টা ও অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি মনিরুল হক জর্জ, সিনিয়র সহ সভাপতি ও অনুষ্ঠানের সভাপতি ডঃ আব্দুল ওয়াহাব, সাধারন সম্পাদক মো: আবুল হাছান, বিশিষ্ট মুক্তিযুদ্ধা হুমায়ুন কবির, কেম্বেলটাউন সিটি কাউন্সিলের কাউন্সিলার মাসুদ চৌধুরী ও বাংলাদেশ এসোসিয়েসন অফ নিউসাউথ ওয়েলসের সাধারণ সম্পাদক মোঃ জামিল হোসেন।অনুষ্ঠানটির সভাপতিত্ব করেছেন ডঃ আব্দুল ওয়াহাব আর সঞ্চালনা করেন সাধারন সম্পাদক মো: আবুল হাছান। অনুষ্ঠানে আরো যে সকল বর্তমান ও সাবেক নেতাকর্মী, উপস্থিত ছিলেন তারা হলেন সহসভাপতি বীর মুক্তিযুদ্ধা হুমায়ন কবির খান, নুর আলম লিটন, মো: রেজাউল হক, সহীদ আহমেদ পারভেজ, আন্তর্জাতিক সম্পাদক সেলিম খান মুকুল,মহলিা বিষয়ক সম্পাদিকা মুনা মোস্তফা সহ-আন্তর্জাতিক সম্পাদক আরিফ এ তাহের শাহীন,প্রচার সম্পাদক মাহবুবুর রহমার,সহ-যুব বিষয়ক সম্পাদক নুর আলম, রাসেল পারভেজ,তায়ফুর সহঅনেকঅনেকসাধারনমানুষ। অনুষ্ঠানটি শুরু হয় পবিত্র কোরাণ তেলাওয়াতের মাধ্যমে, পরে বাংলাদেশ এবং অষ্টেলিয়ার জাতীয় সংগীত আর বিএনপির দলীয় সংগীতের মাধ্যমে। প্রথমেই শহীদদের স্মরণে এক মিনিট নীরবতা পালন করেন। তারপর স্বাগতিক বক্তব্য রাখেন দলের সাংগঠনিক সম্পাদক ইন্জিনিয়ার হাবিবুর রহমান। অনুষ্ঠানে মনিরুল হক জর্জ বলেন ১৬ই ডিসেম্বর বাঙালি জাতির ঐতিহাসিক বিজয়ের দিন, প্রতিবছর আমাদের এই দিনটি আসে বাঙালি জাতিকে বিজয়ের আনন্দের, পুনর্জাগরণের আর স্বজন হারানোর বেদনার সংস্পর্শে। ১৯৭১ সালের বৃহস্পতিবার ১৬ই ডিসেম্বরেই হানাদার পাকিস্তানি বাহিনী পর্যুদস্ত হয়, আসে আমাদের মুক্তির স্বাদ। প্রতি বছর এ জন্যই এই দিনটিকে বিশেষ দিন হিসেবে রাষ্ট্রীয়ভাবে পালন করা হয়। অনুষ্ঠানের সভাপতি ডঃ আব্দুল ওয়াহাব বলেন বাঙালি জাতির অধিকারকে স্বীকৃতি না দিয়ে ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ রাতের অন্ধকারে পাকিস্তানি সামরিক বাহিনী আমাদের বাঙালি নিধনে ঝাঁপিয়ে পড়লে একটি জনযুদ্ধের আদলে মুক্তিযুদ্ধ তথা স্বাধীনতা যুদ্ধের সূচনা ঘটে। দীর্ঘ নয় মাস যুদ্ধের পর ১৬ই ডিসেম্বর ১৯৭১ সালে আসে আমাদের মুক্তি। অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন সহ সভাপতি বেলাল হোসেন ঢালী, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ আবুল হাসান, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মোঃ আশিকুর রহমান, লেখক ও সাংবাদিক আরিফুর রহমান খাদেম, বিএনপি অষ্টেলিয়ার মিজানুর রহমান সুমন, বাংলাদেশ এসোসিয়েসন অফ নিউসাউথ ওয়েলসের প্রাক্তন সভাপতি এডভোকেট মোবারক হোসেন, যুগ্ন সম্পাদক মোঃ মাসুদুর রহমান ও এসবিএস এর আবু রেজা আরেফিন বিএনপি অষ্টেলিয়ার মিনহাজ উদ্দিন, । বক্তারা তুলে ধরেন পাকিস্তানীদের পরিকল্পিত ২৫শে মার্চের কালো রাতে গণহত্যা শুরু করলে বাঙালি জাতি ঐক্যবদ্ধ হয়ে সারাদেশে শুরু করে প্রতিরোধযুদ্ধ, পাকিস্তানি সামরিক বাহিনীর কব্জা থেকে মুক্ত করতে কয়েক মাসের মধ্যে গড়ে তোলে মুক্তিবাহিনী। গেরিলা পদ্ধতিতে যুদ্ধ চালিয়ে মুক্তিবাহিনী সারাদেশে পাকিস্তানি হানাদার বাহিনীকে ব্যতিব্যস্ত করে তোলে। ডিসেম্বরের শুরুর দিকে যখন পাকিস্তানি সামরিক বাহিনীর পতন অনিবার্য হয়ে ওঠে, তখম ৩‘রা ডিসেম্বর ভারতে বিমান হামলা চালায় তারপর ভারত ১৪ দিনের জন্য বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে জড়িয়ে পড়ে। টানা ৯ মাস রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের পর ১৯৭১ সালের ১৬ই ডিসেম্বর ঢাকার সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে হানাদার পাকিস্তানী বাহিনী আনুষ্ঠানিকভাবে আত্মসমর্পণ করে ইত্যাদি। বক্তব্যর শেষে কবিতা আবৃত্তি করেন সেলিম খান মুকুল আর হাবিবুর রহমান। অনুষ্ঠানের পক্ষ থেকে সকল বীর মুক্তিযুদ্ধারে সম্মানে প্রথমবারের মত বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল অষ্ট্রেলিয়ার পক্ষে কুমিল্লা জেলা কমান্ডার বীর মুক্তিযুদ্ধা হুমায়ুন কবিরকে মুক্তিযুদ্ধা সন্মাননা ও ক্রেষ্ট প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানের শেষ পর্বে একটি মনোরম সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও নৈশভোজের আয়োজন করা হয়। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানটি উপস্হাপনা করেন বিএনপি অষ্ট্রেলিয়ার মহিলা বিষয়ক সম্পাদিকা মুনা মুস্তাফা । সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে বাংলা মিউজিক এন্ড ড্যান্স একাডেমী নৃত্যনাট্য (লাল সবুজ) পরিবেশন করে, একক নৃত্য পরিবেশন করেন জারিন তাসনিম রুপকথা। এছাড়াও সংগীত পরিবেশন করেন নূরই মোহাম্মদ সজীব, নামিদ ফারহান ও নীলুফার আক্তার আয়েশা আর হুমায়ুন কবির।

মোহাম্মদ কামরুল ইসলাম দপ্তরসম্পাদক

বিএনপি, অষ্টেলিয়া শাখা

Authors
  
Top