সোনা জিতে শুরুটাও দুর্দান্ত করলেন অস্ট্রেলিয়ান সাঁতারু ম্যাক হর্টন

Horton 7698388-3x2-700x467

ক্যারিয়ারের প্রথম অলিম্পিক। সেখানে নিজের প্রথম ইভেন্টেই সোনা জিতে শুরুটাও দুর্দান্ত করলেন অস্ট্রেলিয়ান সাঁতারু ম্যাক হর্টন। কিন্তু সেটা উদ্যাপন করবেন কী, এর আগেই ২০ বছর বয়সী অস্ট্রেলিয়ান সাঁতারু বিতর্কের কেন্দ্রে এসে গেলেন প্রতিপক্ষ সুন ইয়াংয়ের সঙ্গে কথার লড়াইয়ে জড়িয়ে। পুলে নামার আগেই চীনের সুং ইয়াংকে ডোপপাপী বলে বিতর্কের ঝড় তুলেছেন। ৪০০ মিটার ফ্রিস্টাইলে ইয়াংকে হারিয়ে সোনা জেতার পরও আবার বলেছেন, ডোপপাপীদের জন্য তাঁর কোনো সমবেদনা নেই।
দুজনের ঝামেলা চলছিল রিওতে আসার পর থেকেই। একই পুলে অনুশীলনের সময় ইয়াং সৌজন্যসুলভ ‘হ্যালো’ বলেছিলেন হর্টনকে। কিন্তু হর্টন সেটার জবাব দেওয়া তো দূরের কথা, উল্টো মুখ ঘুরিয়ে নিয়েছিলেন। পরে সংবাদমাধ্যমের কাছে দাবি করেছেন, ‘আমি ওর (সুন ইয়াং) কথার জবাব দিইনি কারণ ডোপপাপীদের সঙ্গে কথা বলার মতো সময় নেই আমার।’
২০১২ লন্ডন অলিম্পিকে ৪০০ মিটার ফ্রিস্টাইলে অলিম্পিক রেকর্ড গড়ে সোনা জেতা সুন ইয়াং অবশ্য সত্যি সত্যিই ডোপ কেলেঙ্কারিতে জড়িয়েছিলেন একবার। ২০১৪ সালে ডোপ পরীক্ষায় পজিটিভ হয়ে তিন মাসের জন্য নিষিদ্ধও হয়েছিলেন। ইয়াং অবশ্য সব সময় দাবি করে এসেছেন, নিষিদ্ধ দ্রব্যটা তিনি নিয়েছিলেন হৃৎপিণ্ডের সমস্যার কারণে।
৪০০ মিটার ফাইনালের আগে সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলার সময়ও হর্টন একাধিকবার ওই প্রসঙ্গ টেনে এনেছেন, ‘আমার ডোপপাপীদের প্রতি কোনো শ্রদ্ধা নেই।’ পরে ফাইনালে ৩ মিনিট ৪১.৫৫ সেকেন্ড সময় নিয়ে হর্টন সোনাও জেতেন। ৩ মিনিট ৪১.৬৮ সেকেন্ড সময় নিয়ে রুপা জেতেন ইয়াং। জয়ের পর সংবাদ সম্মেলনে চীনের সাংবাদিকেরা হর্টনের কাছে জানতে চান, তিনি কেন ইয়াংকে ডোপপাপী বলেছেন? ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে হর্টন বলেছেন, ‘আমি তাকে ডোপপাপী বলেছি, কারণ সে ডোপ টেস্টে পজিটিভ হয়েছে। এটা আমার আর সুনের মধ্যে রেষারেষি নয়। যেসব অ্যাথলেট ডোপ টেস্টে পজিটিভ হয়েছে কিন্তু এখানে খেলতে এসেছে, তাদের সবাইকে নিয়েই আমার সমস্যা আছে।’
হর্টন এই লড়াইটাকে নিয়েছেন ভালো আর মন্দের লড়াই হিসেবে, ‘শেষ ৫০ মিটারে আমি ভাবছিলাম, আমি যেসব কথাবার্তা বলেছি, এখন যদি সে জিতে যায় তাহলে ব্যাপারটা খুব একটা ভালো হবে না। ওকে হারানো ছাড়া আসলে আমার সামনে আর কোনো বিকল্প ছিল না।’
ক্যারিয়ারজুড়েই সুন ইয়াং অনেক বিতর্কের জন্ম দিয়েছেন। তবে রিওতে আসার আগে দেশে প্রতিশ্রুতি দিয়ে এসেছিলেন, সব ভুলে ৪০০ ও ১৫০০ মিটার ফ্রিস্টাইলে সোনা ধরে রাখাটাই তাঁর আসল লক্ষ্য। ৪০০ মিটারে ইতিমধ্যেই সোনা হারিয়েছেন। তবে এর চেয়ে তাঁকে বেশি পোড়াচ্ছে শুরুতেই আবার নতুন বিতর্কে জড়িয়ে পড়া। ফাইনালের পর চীনের সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে তাই কেঁদেছেন সুন ইয়াং। আবেগাপ্লুত হয়ে বলেছেন, ‘আমি স্বচ্ছ। নিজেকে স্বচ্ছ প্রমাণের জন্য আমি সবকিছু করেছি। আমার আর ব্যাখ্যা দেওয়ার দরকার নেই।’ এএফপি।
সাঁতার পদক তালিকা
পুরুষ ৪০০ মিটার ব্যক্তিগত মিডলে
সোনা: কোসুকে হাগিনো (জাপান) ৪: ০৬.০৫
রুপা: চেজ কালিজ (যুক্তরাষ্ট্র) ৪: ০৬.৭৫
ব্রোঞ্জ: দাইয়া সেতো (জাপান) ৪: ০৯.৭১
পুরুষ ৪০০ মিটার ফ্রিস্টাইল
সোনা: ম্যাক হর্টন (অস্ট্রেলিয়া) ৩: ৪১.৫৫
রুপা: সুন ইয়াং (চীন) ৩: ৪১.৬৮
ব্রোঞ্জ: গ্যাব্রিয়েলে দেত্তি (ইতালি) ৩: ৪৩.২৯
মেয়েদের ৪০০ মিটার ব্যক্তিগত মিডলে
সোনা: কাতিনকা হসু (হাঙ্গেরি) (বিশ্ব রেকর্ড) ৪: ২৬.৩৬
রুপা: ম্যাডেলিন ডিরাডো (যুক্তরাষ্ট্র) ৪: ৩১.১৫
ব্রোঞ্জ: মিরিয়া বেলমন্তে গার্সিয়া (স্পেন) ৪: ৩২.৩৯
মেয়েদের ১০০ মিটার ফ্রিস্টাইল রিলে
সোনা: অস্ট্রেলিয়া (বিশ্ব রেকর্ড) ৩: ৩০.৬৫
রুপা: যুক্তরাষ্ট্র ৩: ৩১.৮৯
ব্রোঞ্জ: কানাডা ৩: ৩২.৮৯

পদক তালিকা
সোনা রুপা ব্রোঞ্জ মোট
অস্ট্রেলিয়া ২ ০ ১ ৩
হাঙ্গেরি ২ ০ ০ ২
যুক্তরাষ্ট্র ১ ৪ ০ ৫
চীন ১ ২ ৩ ৬
দ. কোরিয়া ১ ১ ০ ২
রাশিয়া ১ ১ ০ ২
জাপান ১ ০ ৪ ৫
আর্জেন্টিনা ১ ০ ০ ১
বেলজিয়াম ১ ০ ০ ১
থাইল্যান্ড ১ ০ ০ ১
ভিয়েতনাম ১ ০ ০ ১
ইতালি ০ ১ ১ ২
কাজাখস্তান ০ ১ ১ ২
ব্রাজিল ০ ১ ০ ১
ডেনমার্ক ০ ১ ০ ১
ইন্দোনেশিয়া ০ ১ ০ ১
কানাডা ০ ০ ১ ১
স্পেন ০ ০ ১ ১
গ্রিস ০ ০ ১ ১
পোল্যান্ড ০ ০ ১ ১
উজবেকিস্তান ০ ০ ১ ১
* কাল রাত ১২.৩০ পর্যন্ত

Authors
Top